মাসদাইরে ৩য় শ্রেনীর ছাত্রীকে শ্লীলতাহানী

ফতুল্লার পশ্চিম মাসদাইরে তয় শ্রেনীর ছাত্রীকে প্রাইভেটকারে বেড়ানোর কথা বলে শ্লীলতাহানী করা হয়েছে। এ ব্যাপারে শিশুর বাবা বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় সুলতান মাহমুদ শাহীনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেছে।

পশ্চিম মাসদাইর এলাকায় শিশুটি তার পরিবারের সাথে একটি বাড়িতে ভাড়া থাকে। ঐ বাড়ির পাশে একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতো সুলতান মাহমুদ শাহিন ও তার পরিবার। পার্শ¦বর্তী বাড়ির ভাড়টিয়া হিসেবে স্কুল ছাত্রীর বাবা-মায়ের সাথে শাহিনের সু-সম্পর্ক গড়ে উঠে।

গত ১০ মে শাহিন শিশুটিকে বেড়ানোর কথা বলে একটি প্রাইভেট কারে উঠায়। এসময় প্রাইভেটকারটি মাসাদাইর শ্মশান ঘাট এলাকার আসার পর শাহিন তার মোবাইলে থাকা অশ্লীল ভিডিও দেখায়, এবং শিশুটিকে শ্লীলতাহানী করে।

এ সময় শিশুটি প্রাইভেটকারের ভিতর চিৎকার শুরু করে। শিশুটির চিৎকার করার কারণে শাহিন পুনরায় শিশুটিকে তার বাড়িতে নিয়ে রেখে আসে। শিশুটি বিস্তারিত ঘটনা তার পরিবারকে জানায়।

এ ব্যাপারে শিশুটির বাবা ফতুল্লা মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। অভিযুক্ত সুলতান আহম্মেদ শাহীন চট্রগ্রাম হালি শহর থানা এলাকার,কুমারী দিঘির পাড় এলাকার মৃত মুতাহার উদ্দিন আহম্মেদ হোসাইনের ছেলে বলে জানা গেছে।