আইনের সংশোধন চাই,না হলে ধারাবাহিক কর্মসুচী- পলাশ

ফতুল্লা(আজকের নারায়নগঞ্জ):  পরিবহনের নতুন আইন পাশের বিরুদ্ধে ও ৮ দফা দাবিতে দেশ ব্যাপি ৪৮ ঘন্টা কর্মবিরতি পালন করেছে পরিবহন শ্রমিকরা। এর ধারাবাহিকতায় রোববার (২৮ অক্টোবর) ছিলো কর্মবিরতির প্রথম দিনে ফতুল্লার পাগলা এলাকায় ট্রাক চালক শ্রমিকরাও এ কর্মসূচী চলছে।

পাগলা নতুন ট্রাক টার্মিনাল এলাকায় প্রায় ৩ শতাধিক লোকাল ও আন্ত:জেলা ট্রাক বন্ধ রাখা হয়েছে। এসময় আন্দোলনরত পরিবহন শ্রমিকদের জন্য দুপরে খাবারের আয়োজন করেন ট্রাক চালকদের বৃহত্তর সংগঠন বাংলাদেশ আন্তঃজিলা ট্রাক চালক ইউনিয়ন পাগলা শাখার নেতৃবৃন্দ।

পাগলা শাখার সভাপতি ও বাংলাদেশ শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় নেতা এবং শ্রমিকলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির শ্রমিক উন্নয়ন ও কল্যান বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব কাউসার আহম্মেদ পলাশ বলেন, আমরা পরিবহন আইনের সংশোধন চাই, আমরা শান্তি প্রিয় ভাবেই কর্মবিরতি পালন করছি। আমাদের ৮ দফা দাবি মানা না হলে ধারাবাহিক কর্মসুচী দেওয়া হবে।

তিনি আরো বলেন, কোনো চালকই চায় না তার গাড়ির চাকায় কেউ পিষ্ট হোক। চালক বরাবরই তার জীবন বিপন্ন করে অসংখ্য মানুষকে সেবা দিয়ে যাচ্ছে। তাহলে এই চালক কীভাবে ঘাতক হয়? বেহাল সড়কের জন্য দূর্ঘটনা ঘটে তাহলে কি আমার চালক দায়ি? এরকম অনেক বিষয় রয়েছে যেসব কারণে দূঘটনা ঘটে। সকল দূর্ঘটনার জন্য আমাদের পরিবহন শ্রমিকরা দায়ী নয়। আমাদেরকে দাবি আদায়ে পথে নেমে আসতে বাধ্য করবেন না।

পাগলায় কর্মবিরতি পালনকারী শ্রমিকদের মাঝে রান্না করা খাবার বিতরন কালে উপস্থিত ছিলেন, আন্তঃজিলা ট্রাক চালক ইউনিয়ন পাগলা শাখার কার্যকরি সভাপতি বাবুল আহম্মেদ, সহ-সভাপতি আ: করিম তপু, সম্পাদক জজ মিয়া, যুগ্ম সম্পাদ আলম মিয়া, সহ-সম্পাদক ফিরোজ মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক বশির আহম্মেদ, সহ- সাংগঠনিক সম্পাদক উবাইদুর রহমান উবায়েদ, অর্থ সম্পাদক ইমরান হোসেন, দপ্তর সম্পাদক শফিকুর রহমান, প্রচার সম্পাদক হারুন মিয়া, সমাজ কল্যান সম্পাদক হারুন অর রশিদ, বাংলাদেশ আন্তঃজিলা ট্রাক চালক শ্রমিক ইউনিয়ন দক্ষিন বঙ্গে লাইন সম্পাদক আবুল হোসেন, ইউনাইটেড ফেডারেশন গার্মেন্টস ওয়ার্কার্স এর সভাপতি শাহাদাত হোসেন সেন্টু, কুতুবপুর ইউনিয়ন ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর আলম, মোঃ ফারুক আকন, মোবারক হোসেন, আজিজুল হক ও সাকিল।