১৬ ঘন্টা পর রূপগঞ্জের বাড়িতে ফিরেছে বাদলসহ তিন নেতা

রূপগঞ্জ(আজকের নারায়নগঞ্জ): রূপগঞ্জ উপজেলার কায়েতপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি শফিকুল রহমান ভুঁইয়া বাদলসহ তিন নেতাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে অপহরণের ১৬ ঘন্টা পর বৃহস্পতিবার সকালে তারা বাড়ি ফিরেছে।

২৪ অক্টোবর বুধবার বিকেল ৪টায় উপজেলার কায়েতপাড়া ইউনিয়নের বড়ালু এলাকা থেকে সাদা পোশাকদারী ৮-৯জন ব্যক্তি মাইক্রোবাসে করে তুলে নিয়ে যায়।

অপহৃতদের কোনো সন্ধান না পেয়ে রূপগঞ্জ উপজেলা যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগের শতাধিক নেতাকর্মী ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ভুলতা এলাকায় সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত অবরোধ করে রাখে।

পুলিশ ও সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজীর আশ্বাসে নেতাকর্মীরা অবরোধ তুলে নেয়। পরদিন বৃহস্পতিবার সকাল ৮টায় অপহৃত বাদলসহ তিন নেতা নিজ বাড়িতে ফিরে আসে।

কায়েতপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি শফিকুল রহমান ভুঁইয়া বাদল জানান, তাকেসহ যুবলীগ নেতা শাকিল মিয়া, ছাত্রলীগ নেতা শাকিল আহমেদকে সাদা পোশাকে অস্ত্রধারী ৮-৯জন লোক নিজেদের ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে মাইক্রোবাসে তুলে নেয়।

পরে তাদের হাত-পা ও চোখ বেঁধে ফেলে। গাড়িতে করে সারা রাত বিভিন্ন স্থানে ঘুরানো হয়। এ সময় একাধিক বার তাদের হত্যা করবে বলেও হুমকি দেয়া হয়। পরে ভোর ৫টার দিকে তাদের গাজীপুরের কাপাসিয়া এলাকায় মহাসড়কের পাশে ফেলে দিয়ে চলে যায়।

সকালে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে হাত-পা ও চোখের বাধন খুলে দেয়। সকাল ৮টার দিকে রূপগঞ্জের কায়েতপাড়া ইউনিয়নের মাঝিনা গ্রামের বাড়ি ফিরে যুবলীগের এই নেতা।

এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মনিরুজ্জামান বলেন, কি কারণে কারা বাদলসহ তিনজনকে অপহরণ করে নিয়ে গেছে এখনো জানা যায়নি। তবে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।