ফতুল্লায় কোচিং সেন্টারে ছাত্রী ধর্ষন,তাপস স্যার গ্রেপ্তার

ফতুল্লা(আজকের নারায়নগঞ্জ): ফতুল্লার রেল ষ্টেশন এলাকায় কোচিং সেন্টারে পড়তে যাওয়া এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করেছে শিক্ষক। কোচিং সেন্টারের মালিক শিক্ষক তাপসকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় সোমবার রাতে ধর্ষণের শিকার বাদী ছাত্রীটি বাদী হয়ে একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতী নিয়েছে। মামলা হওয়ার আগে একটি পক্ষ ঘটনা ভিন্নখাতে নেয়ার চেষ্টা করছে বলে জানান ছাত্রীটির পরিবার।

কয়েক বছর ধরে ফতুল্লার রেল লাইন এলাকায় তাপসের কোচিং সেন্টারে লেখাপড়া মেয়েটি। রোববার দুপুরে ছাত্রীটি তাপসের কোচিং সেন্টারে পড়তে যায়। সন্ধ্যার দিকে কোচিং সেন্টারের মালিক তাপস ছাত্রীকে তার দ্বিতীয় তলার রুমে যেতে বলে।

ছাত্রীটি শিক্ষকের রুমে গেলে,সেখানে ঐ ছাত্রীকে বিভিন্ন ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। ঘটনার পর ছাত্রী তার বাসায় গিয়ে পরিবারের লোকজনদের বিষয়টি জানায়। সোমবার সন্ধ্যায় পুলিশ অভিযুক্ত শিক্ষক তাপসকে গ্রেফতার করে।

এলাকাবাসী জানায়, তাপস ৪/৫ বছর আগে তার কাছে প্রাইভেট পড়তে থাকা এক ছাত্রীকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়েছিল । ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর এলাকাবাসী তাপসকে ধনধোলাইও দিয়েছিল।

এব্যাপারে ফতুল্লা মডেল থানায় এসআই মিজানুর রহমান বলেন, ঘটনা তদন্ত চলছে। বিস্তারিত পরে বলা যাবে।