1. admin@ajkernarayanganj.com : admin :
রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০২:৫৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সোনারগাঁয়ে সরকারী খাল বালু ভরাট করে দখলের অভিযোগ সোনারগাঁয়ে ৩২২ জন কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা সোনারগাঁয়ে সওজের জায়গা দখল,দোকান ভাড়া দিয়ে আ’লীগ নেতাদের বানিজ্যের অভিযোগ সোনারগাঁয়ে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার সোনারগাঁয়ে জাতীয় কবি নজরুল ইসলামের ১২৫ তম জন্মবার্ষিকী পালিত মর্গ্যান গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক পুরস্কার বিতরণ সোনারগাঁয়ে ভূমি সেবা সপ্তাহ শুরু বন্দরে সন্ত্রাসীদের গুলিতে যুবক খুন সোনারগাঁয়ে বাদি ও সাক্ষীকে আটকে রেখে নির্যাতনের ঘটনায় শ্রমিকলীগের প্রতিবাদ ও নিন্দা  জনস্বাস্থ্য সুরক্ষা প্রকল্পের কার্যক্রম চলমান রাখা দাবীতে মানববন্ধন

সোনারগাঁয়ে আল আমিন চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে নারী গ্রাম পুলিশ সদস্যকে মারধরের অভিযোগ

আজকের নারায়নগঞ্জ ডেস্ক :
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২০ নভেম্বর, ২০২৩
  • ১৫২৮ বার পঠিত

সোনারগাঁ প্রতিনিধিঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন পরিষদ অভ্যন্তরে শাহনাজ বেগম (৪৫) নামে এক নারী গ্রাম পুলিশ সদস্যকে মারধর করে আহত করার অভিযোগ উঠেছে চেয়ারম্যান আল আমিন সরকারের বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে গতকাল সোমবার সকালে নারী গ্রাম পুলিশ সদস্য শাহনাজ বেগম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, জেলা প্রশাসক, সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, উপজেলার বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের সাতভাইয়া পাড়া গ্রামের শরিফ উদ্দিনের স্ত্রী শাহনাজ বেগম বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নে ১৯ বছর ধরে গ্রাম পুলিশ সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। একই ইউনিয়নের আরেক গ্রাম পুলিশ সদস্য নাসিমা বেগম তার নামে চেয়ারম্যানের নিকট মিথ্যা অভিযোগ দেয়। গত ১৫ নভেম্বর সকালে ইউনিয়ন পরিষদে দায়িত্ব পালনকালে চেয়ারম্যান আল আমিন সরকার অভিযোগের কোনো যাচাই বাছাই না করে অকথ্য ভাষা গালিগালাজ করে। কি অপরাধ জানতে চাইলে চেয়ারম্যানের হাতে থাকা লোহার পাইপ দিয়ে তাকে এলোপাথাড়িভাবে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। প্রাথমিকভাবে স্থানীয় ফার্মেসীতে চিকিৎসা নেওয়ার পর তার শারিরিক অবস্থার অবনতি হলে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে ভর্তি করে।
স্থানীয় এলাকাবাসীরা বলেন, একজন নারী গ্রাম পুলিশ সদস্যকে চেয়ারম্যান মারধর করতে পারেনা। আমরা এই চেয়ারম্যানের শাস্তি চাই।

ভুুক্তভোগীর বড় মেয়ে মহিমা আক্তার বলেন, চেয়ারম্যান আমার মাকে মারধর করে আহত করেই শুধু ক্ষান্ত হননি। আমরা যদি এ বিষয়ে বাড়াবাড়ি করি তাহলে আমার মায়ের চাকুরি থাকবেনা বলে চেয়ারম্যান হুমকি দেয়।

এ বিষয়ে চেয়ারম্যান আল আমিন সরকার জানান, ওই নারী গ্রাম পুলিশ সদস্যসের সঙ্গে আমার পরিষদের অন্য একজনের সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্ক রয়েছে বলে কয়েকজন আমার কাছে অভিযোগ করেছেন। এ কারণে তাকে শাসন করেছি।

সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহাবুব আলম বলেন, এ বিষয়ে এখনো কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রেজওয়ান উল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা পেলে প্রয়োজনী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Facebook Comments Box
এই জাতীয় আরও খবর